Logo: NYnews52.com





আজকের পৃথিবী আমাদের পৃথিবী


প্রথম পাতা


হার্ভার্ডে যৌন শিক্ষার নতুন কর্মশালা!

এনওয়াইনিউজ৫২: সম্প্রতি বিশ্বখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় হার্ভার্ডের ছাত্রছাত্রীদের জন্যে পয়ুপথে যৌনক্রিয়া সংক্রান্ত নতুন শিক্ষা কর্মশালা 'অ্যানাল সেক্স ১০১' পরিচালনা করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ষিক যৌন সপ্তাহ পালন উপলক্ষ্যে নানা কর্মকাণ্ডের ভেতরে এই কোর্চটিও সাড়া জাগাতে সক্ষম হয়। পায়ুপথে যৌনক্রিয়ার ধারনা ও উপকারিতা এবং সম্ভাব্য আনন্দ-উত্তেজনার কথা বলে কোর্চ বিবরণিতে ছাত্রছাত্রীদের অংশগ্রহণের আহ্বান জানানো হয়েছিলো। অভিজ্ঞ সেক্স বিসারদ দিয়ে পায়ুপথে যৌনক্রিয়ার বিষয়ে নানারকম সম্ভবনার কথাও উল্লেখ করা হয়। এসহেলথ্ ওয়েব সাইটের তথ্য থেকে আরো জানা যায় যে এই বিশ্ববিদ্যালয় ২০১২ সালেও যৌনসপ্তাহ পালন উপলক্ষ্যে একই রকম কর্মশালা পরিচালনা করে।
জামায়াতের হুমকি!

নাটোর থেকে : দলের আমীর মতিউর রহমান নিজামীকে ফাঁসি দেয়ায় ক্ষোভ পকাশ করে আর যদি একটা রায় এমন হয়, আগামী বৃহস্পতিবার থেকে লাগাতার হরতালের হুশিয়ারি দিয়েছে জামায়াতে ইসলাম। শনিবার বিকালে জেলা নবাব সিরাজউদ্দোলা সরকারি কলেজ মাঠে ২০ দলীয় জোটের আয়োজিত জনসভায় জামায়াতের নায়েবে আমীর অধ্যাপক মজিবুর রহমান এই হুশিয়ারি দেন। একই সঙ্গে ২০ দলীয় জোচ নেত্রী বেগম খালদ জিয়ার নেতৃত্বে আগামী দিনে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশনা দেন তিনি। নিজামীর রায়ের প্রতি শনিবার একদিন হরতাল করেছে জামায়াত। আজ ভোর ৬টা থেকে টানা ৪৮ ঘন্টার হরতাল শুরু করবে দলটি। নাটোরের জনসভায় সদ্য দন্ডপ্রাপ্ত মতিউর রহমান নিজামীন জন্মস্থান পাবনা থেকে জামায়াত ও শিবিরের হাজার হাজার নেতাকর্মী মিছিল নিয়ে যোগদান করে। তারা মাথয় শিবিরের পট্টি এবং জামায়াতের লগু খচিত গেঞ্জি পরিহিত দেখা যায়। জনসভায় অধ্যাপক মজিবুর রহমান বলেন, জামায়াত নেতৃবৃন্দকে খতমের (হত্যা) ষড়যন্ত্র চলছে। অধ্যাপক গোলাম আযমকে কারাগারে নির্যাতন করে শহীদ করা হয়েছে। আমাদের আমীর মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে সর্বোচ্চ সাজা দিয়ে তাকে হত্যার করে খতম করার ষড়যন্ত্র হচ্ছে। এর প্রতিবাদে হরতাল চলছে, হরতাল চলবে। আমরা স্পষ্টভাষায় বলে দিতে চাই, যদি আরেকটা এমন রায় হয়, তবে বৃহস্পতিবার থেকে লাগাতার হরতাল চলবে। এ সময়ে ২০ দলীয় জোট নেত্রী খালেদা জিয়াসহ জোটের শরিক শীর্ষ নেতারা মঞ্চে ছিলেন। অধ্যাপক মজিবুর রহমান বলেন, জীবন্ত আব্দুল কাদের মোল্লা থেকে শহীদ আব্দুুল কাদের মোল্লা অনেক শক্তিশালী। জীবন্ত অধ্যাপক গোলাম আযম থেকে শহীদ গোলাম আযম বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে সন্মানের ব্যক্তিত্ব হিসেবে সন্মান্বিত হয়েছেন। ঢাকায় অধ্যাপক গোলাম আযমের জানাজায় ব্যাপক মানুষের অংশগ্রহণের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, শহীদ অধ্যাপক গোলাম আযমের জানাজায় লক্ষ লক্ষ মানুষের অংশ গ্রহণ প্রমাণ করে গোলাম কত বড় শক্তিশালী। জামায়াত নেতা সরকার হটানোর আন্দোলনে সকলকে প্রস্তুতি নেয়ার আহবান জানিয়ে অধ্যাপক মজিবুর রহমান বলেন, মিথ্যা মামলা, কারাগার, গুলি চালিয়ে জনগনের এই আন্দোলনকে দমানো যাবে না। এই সরকারের অবশ্যই বিদায় নিতে হবে। দুর্নীতি দমন কমিশনের কঠোর সমালোচনাও করেন জামায়াতের এই নেতা। তিনি এই প্রতিষ্ঠানকে ক্ষমতাসীনদের দুর্নীতিমুক্ত করার সনদ দেয়ার প্রতিষ্ঠান বলে মন্তব্য করেন। (সূত্র: ভোরের কাগজ)
দুই নেত্রীর উপর জঙ্গী হামলার আশঙ্কা

ঢাকা ॥ (১ নভেম্বর, ২০১৪) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ওপর হামলা পরিকল্পনার খবরে উদ্বিগ্ন বাংলাদেশের নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা। তাঁদের কথায়, গণতন্ত্রের স্বাথেই নিরাপত্তা জোরদার করা উচিত। প্রশ্ন হচ্ছে , আদৌ কি সেটা হচ্ছে? বিদেশি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ভারতে বসে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ওপর হামলার পরিকল্পনা করছিল। শুধু তাই নয়, জঙ্গিরা বাংলাদেশে আরো অনেক রাজনৈতিক নেতা এবং স্থাপনায় ব্যাপক হামলার পরিকল্পনা করেছিল। তাদের উদ্দেশ্য ছিল, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক কঠামো ধ্বংস করা। আর এই খবরটি ভারতীয় জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার বরাত দিয়েই প্রকাশ করা হয়েছিল। জানা যায়, চলতি মাসের শুরুতে ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার খগড়াগড়ে একটি বাড়িতে বোমা বানাতে গিয়ে দুজন জঙ্গি নিহত হওয়ার পর ভারতীয় গোয়েন্দাদের তদন্তে এসব তথ্য বেরিয়ে আসে। নিহত শাকিল আহমেদ এবং সোবহান মণ্ডল বাংলাদেশের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সদস্য এবং তারা বাংলাদেশের নাগরিক বলে দাবি করেন ভারতীর গোয়েন্দারা। এ ঘটনায় ভারতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দারা জানান, তারা বাংলাদেশে নাশকতার এই ষড়যন্ত্রের বিস্তারিত তথ্য বাংলাদেশকে জানাবেন। আর এ বিষয়ে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল বলেছিলেন, এসব তথ্য বাংলাদেশ অনানুষ্ঠানিকভাবে জেনেছে। বাংলাদেশের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী জঙ্গিদের বেশ কয়েকটি পরিকল্পনা ভন্ডুল করে দিয়েছে। এ ছাড়া তাদের বেশ কিছু নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের জন্য এবং বিভিন্ন স্থাপনায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে৷ এর সঙ্গে ভারত 'অফিসিয়ালি' কোনো তথ্য দিলে, সেগুলোও গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করা হবে। এ ব্যাপারে গোয়েন্দা বিভাগের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি এবং স্থাপনার ওপর হামলা পরিকল্পনার খবর আমাদের কাছেও রয়েছে। সে অনুযায়ী ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে৷ গত এক মাসে জেএমবির প্রধানসহ অন্তত ২৯ জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের মতে বাংলাদেশ থেকে অন্তত ১৮০ জন জঙ্গি ভারতে গিয়ে গা ঢাকা দিয়েছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশের নিরাপত্তা বিশ্লেষক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহেদুল আনাম খান (অব.) বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার ওপর হামলার চেষ্টা বা পরিকল্পনা এই প্রথম নয়। এর আগেও এমনটা হয়েছে। তবে এবার ভারতীয় গোয়েন্দারা জানালেন যে শুধু শেখ হাসিনা নয়, খালেদা জিয়াসহ আরো রাজনৈতকি নেতাদের ওপরও হামলা পরিকল্পনা করছিল জঙ্গিরা। তাও আবার ভারতের মাটিতে বসে। তাদের উদ্দশ্য হলো বাংলাদেশে একটা অরাজকতা সৃষ্টি করে তার সুযোগ নেওয়া। শাহেদুল আনাম খান আরো বলেন, সরকারের উচিত হবে শুরুতেই জঙ্গিদের এই অপচেষ্টা রুখে দেওয়া। এজন্য সার্বিকভাবে দেশের নিারপত্তা জোরদার করার পাশাপাশি ব্যক্তি নিরাপত্তাও জোরদার করা প্রয়োজন। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা খুবই জরুরি। (সূত্র: কালের কণ্ঠ)










আরো সংবাদ


অর্থনীতি
চীন হতে পারে বাংলাদেশের নতুন রফতানি গন্তব্য
যুক্তরাষ্ট্রে বেকারত্ব বেড়েই চলেছে

কবিতা/সাহিত্য

সভ্যতায় নারী: অনাদৃত অবদান/পূরবী বসু
তিন প্রকার ছন্দ/হাসানআল আব্দুল্লাহ
তিনটি কবিতা/শেখর সিরাজ
গুচ্ছ কবিতা/রেজানুর রহমান রেজা

দু'টি কবিতা /মনসুর আজিজ

কবিতা : অনুধাবন ও সংশোধন/মাহমুদুল হক সৈয়দ

গল্প/মোজাফফর হোসেন
ছড়া

হাসানআল আব্দুল্লাহ'র একগুচ্ছ ছড়া
একগুচ্ছ ছড়া-কবিতা/মনসুর আজিজ
আলোচনা

অনুপম শব্দমঞ্জুরীময় : শব্দগুচ্ছ/রেজানুর রহমান রেজা

খেলাধূলা

ফুটবলে অভিনয়: কাকার রেডকার্ড/নাজনীন সীমন



বিজ্ঞান

পৃথিবীর মতো গ্রহ


পূ্র্ববর্তী সংখ্যা



অন্যান্য পুরোনো সংখ্যা












পুরোনো সংখ্যা

আমরা সবার কথা বলি
e-mail: editor@nynews52.com




ক্রিকেটের নতুন মহানায়ক সাকিব আল হাসান!


সাকিব আল হাসান
সাকিব আল হাসান উঠে এলেন ক্রিকেটের 'এলিট' গ্রুপে। সদ্য সমাপ্ত খুলনা টেস্টে তিনি শুধু বাংলাদেশ টিমকে জয়ের ধারায় ফেরাতে অগ্রণী ভুমিকা রাখেননি, ক্রিকেট ইতিহাসে নিজের জায়গাটি এলিটগ্রুপে তুলে নিয়েছেন। ৩১ বছর আগে ইমরান খানের করা রেকর্ডকে তিনি তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে স্পর্শ করার গৌরব আর্জন করেছেন। একই মেসে (টেস্ট) ১০ উইকেট শিকার ও সেঞ্চুরি তুলে নেয়া তিনজন ক্রিকেটারের এখন তিনি একজন। অন্য দুই ক্রিকেটার হলেন ইমরান খান ও ইয়ান বোথাম। সাকিবের কৃতিত্বে ২০০৯ সালের পর এই প্রথম টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশ জয় পেলো। অন্যদিকে সাকিবও আইসিসি রাংকিং-এ এক নম্বার অলরাউন্ডার হিসেবে নিজেকে পুনপ্রতিষ্ঠিত করলেন। এনওয়াই নিউজ ৫২-র পক্ষে সাকিব আল হাসান ও বাংলাদেশ টিমকে অভিনন্দন!

ব্রিটেনের নির্বাচনে এমপি পদে লড়বেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ৬ ব্রিটিশ!


২০১৫ সালের মে মাসে অনুষ্ঠিতব্য ব্রিটেনের পার্লামেন্ট নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ বাংলাদেশী বংশদ্ভূত ব্রিটিশ। ইতিপূর্বে রুশনারা আলি পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হয়ে বাঙালীদের জন্যে যথেষ্ট সম্মান বয়ে এনেছেন। আগামী নির্বাচনে তিনি ছড়াও অন্য যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তারা হলেন শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিকী, মিনা রহমান, সাদিক চৌধুরী, আনোয়ার বাবুল, ও রূপা হক । (সূত্র: ইন্টারনেট)

ডিসেম্বরের 'নতুন বইয়ের গল্প' শোনাবেন ছয় লেখক



৫ ডিসেম্বর, ২০১৪ শুক্রবার নিউইয়র্কে 'নতুন বইয়ের গল্প' বলবেন বাংলা একাডেমী পুরস্কার প্রাপ্ত বিশিষ্ট গল্পকার দম্পতি জ্যোতিপ্রকাশ দত্ত ও পূরবী বসু, বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব বেলাল বেগ, কবি-গল্পকার ও নিউইয়র্ক সিটি হাইস্কুলের শিক্ষক নানজীন সীমন, কবি হাসানআল আব্দুল্লাহ এবং কবি ও বিজ্ঞানী ধনঞ্জয় সাহা। এ বছর ঢাকা থেকে প্রকাশিত এই পাঁচ লেখক তাঁদের যেসব বই নিয়ে আলোচনা করবেন সেগুলো যথাক্রমে ‌'শূন্য নভে ভ্রমি' (উপন্যাস), 'অবিনাশী যাত্রা' (উপন্যাস), 'একাত্তরহীন বাংলাদেশ' (প্রবন্ধ), 'বিশেষণের বিশেষ বাড়ি' (কাব্যগ্রন্থ), 'ডহর' (উপন্যাস), ও প্রেম পাথরের কারখানা (কাব্যগ্রন্থ)। 'শব্দগুচ্ছ' কবিতা পত্রিকা ও এনওয়াইনিউজ৫২ ডট কম আয়োজিত নতুন বই নিয়ে এই ব্যতিক্রমধর্মী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে মামুন'স টিউটোরিয়াল-এর জ্যাকসন হাইটস অফিসে। ঠিকানা: ৩৭-২১ ৭২ ষ্ট্রীট। অনুষ্ঠান শুরু হবে সন্ধ্যা ছয়টায়।

১৫ লাখে মেয়েকে বিক্রি করলেন আইনজীবী মা


শনিবার, ১ নভেম্বর ২০১৪: ভারতীয় উপমহাদেশে টাকার বিনিময়ে নিজের মেয়েকে বিক্রির খবর যে নতুন একথা বলা যাবে না। এরকম যে ঘটনাগুলো ঘটেছে তা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই গ্রামের অশিক্ষিত বাবা-মাকেই দায়ী করা হয়। কিন্তু ভারতের তামিলনাড়ুর সালেম শহরে সম্পত্তির লোভে নিজের মেয়েকে বিক্রির যে ঘটনা ঘটেছে তা কোনো অশিক্ষিত বাবা-মা নয়। তারা শহরের আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত। তাহলে ঘটনাটা বিস্তারিত শোনা যাক। কীভাবে মাত্র ১৪ বছরের এক মেয়েকে ১২ লাখ টাকার সম্পত্তির লোভে বিক্রি করে দেয়া হয়।টাকার লোভে মেয়েকে বিক্রি ১৫ লাখে মেয়েকে ‘বিক্রি’ আইনজীবী মা’র মেয়েটির মা আইনজীবী, বাবাও উচ্চশিক্ষিত। তামিলনাড়ুর সালেম শহরের এ ঘটনা সবাইকে হতবাক করে দিয়েছে। ১২ লাখ রুপি সম্পত্তির বিনিময়ে নাবালিকা স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে বিয়ে দেন বাবা-মা। ১২ অক্টোবর দশম শ্রেণীর ওই ছাত্রীর সঙ্গে বিয়ে হয় বাবু নামে এক ব্যবসায়ীর। বাবুর আগের স্ত্রী ছিল এবং তার দুই বছরের একটি ছেলেও ছিল। ওই বাবা-মা তার মেয়ের বিনিময়ে বর বাবুর কাছে থেকে ওই পরিমাণ টাকা আদায় করেন। শিক্ষিত আইনজীবী মা বিয়ের পরই তার নিজের ভুল বুঝতে পারে। তিনি স্থানীয় থানায় অভিযোগ করেন জামাই বাবুর বিরুদ্ধে। আর অভিযোগে লেখেন চাপ সৃষ্টি করে তার মেয়েকে বিয়ে করেছে বাবু। মেয়েটির মা জানান, মামলার বিষয়ে আলোচনা করতে বাবু প্রায়ই তার বাড়িতে আসতেন। বাবু স্থানীয় রাজনৈতিক এক নেতার ছেলে। তিনি তার ১৪ বছরের মেয়েকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। কিন্তু তারা এ বিয়ে অস্বীকার করলে বাবু আত্মহত্যার হুমকি দেন। ক্রমাগত চাপ সৃষ্টি করে শেষ পর্যন্ত তাদের মত আদায় করে নেন। এরপর মেয়েটির মা স্থানীয় এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থায়ও অভিযোগ করেন। সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সংস্থার প্রতিনিধিরা পুলিশসহ বাবুর বাড়ি থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করতে যায়। কিন্তু তখন মেয়েটি নাবালিকা হওয়ার কোনো প্রমাণ সঙ্গে না থাকায় খালি হাতে ফিরে আসতে হয়। সে সময় মেয়েটি পুলিশকে জানায়, তার বাবা-মাই তাকে বাবুর কাছে বিক্রি করে দিয়েছে। বিক্রি করুক আর টাকার লোভেই বিয়ে দিক কিন্তু মেয়েটিকে ফেরত চান ওই মেয়েটির মা। এর পরের বার আবার বাবুর বাড়িতে যান তারা। আর সঙ্গে করে নিয়ে যান মেয়ের জন্ম নিবন্ধনের প্রমাণপত্র। শেষে আইনের কাছে হার মানে বাবু। সম্পত্তির সঙ্গে হারায় তার নাবালিকা স্ত্রীকেও।(সূত্র: ভোরের কাগজ)

গণজাগরণ মঞ্চ-এর আন্দোলন চলবে


বক্তব্য রাখছেন ইমরান এইচ সরকার
ঢাকা: গণজাগরণ মঞ্চ রাজপথে আন্দোলন চালিয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন ইমরান এইচ সরকার।একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে তিনি একথা বলেন। বুধবার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ রায় ঘোষণা করার পর ইমরান বলেন, ‘এই রায়ের মাধ্যমে আমরা ন্যায় বিচার পেয়েছি। এই রায় প্রত্যাশিত ছিল। আমাদের প্রতিক্ষীত যে ন্যায় বিচার প্রত্যাশিত ন্যায় বিচার আমরা পেয়েছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘শহীদ সাংবাদিক সিরাজউদ্দীন হোসেন ও সুরকার আলতাফ মাহমুদসহ বুদ্ধিজীবী হত্যা ও গণহত্যার দায়ে অভিযুক্ত কুখ্যাত আলবদর বাহিনীর সদস্য মুজাহিদের রায়ে জাতি সন্তুষ্ট হয়েছে। ৪২ বছর পর এই রায়ের মাধ্যমে জাতি ন্যায় বিচার পেয়েছে।’ এছাড়াও তিনি গোলাম আযমের রায় প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমরা গোলাম আযমের রায় প্রত্যাখ্যান করেছি। সরকার পক্ষ যদি সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য আপিল না করে তবে গণজাগরণ মঞ্চ আপিল করবে।’ ইমরান এইচ সরকার জানান, সর্বশেষ যুদ্ধাপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত গণজাগরণ মঞ্চ রাজপথে আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

একজন লতিফ সিদ্দিকী ও আজকের বাংলাদেশ


লতিফ সিদ্দিকী
মন্তব্য প্রতিবেদন ॥ নিউইয়র্কে দেয়া খোলামেলা বক্তব্যের জন্যে মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকী বেশ বেকায়দায় পড়েছেন। ইতিমধ্যে তার মন্ত্রীত্ব গেছে, গেছে পার্টির প্রেসিডিয়াম পদ, এবং অচিরেই সাধারণ সদস্য পদও তিনি হারাবেন, যার শোকজ নটিস তাঁর কাছে পৌঁছে গেছে। কি বলেছিলেন লতিফ সিদ্দিকী যার ফলে দুর্নীতিতে ভরা বাংলাদেশের রাজনীতি হঠাৎ করেই নীতির(!) কাছে আত্মসমর্পন করে বসলো। বলা হচ্ছে যে তিনি ইসলামের উপর আঘাত হেনেছেন, তিনি ধর্মের শত্রু। অথচ ইউটিউবে তাঁর বক্তব্য দেখে মনে হলো যে তিনি কেবল তাঁর মতামত দিয়েছে। তিনি বলেছেন যে তিনি হজ্ব ও তাবলিগ জামাতকে পছন্দ করেন না, এবং অতি সক্ষেপে তাঁর এই না-পছন্দের কারণও তুলে ধরেছেন। প্রায় ৫০০০ কোটি টাকা ব্যায়ে প্রতিবছর বাংলাদেশ থেকে বিপুল সংখ্যক লোক হজ্বে যান সেটা তাঁর কাছে অর্থের অপচয় বলেই মনে হয়েছে, তাছাড়া ঢাকার রাস্তা বন্ধ করে তাবলিগের এস্তেমা তেমন কোনো উপকারে আসে না বলেও তিনি মত দিয়েছিলেন। লক্ষ্য করার বিষয় যে তিনি কিন্তু বলেননি যে আমি হজ্ব তুলে দিতে বলছি, বা বলেননি যে আমি তাবলিগের 'বিশ্ব এস্তেমা' তুলে দিতে বলছি। একবিংশ শতাব্দীর শুরুতে নিউইয়র্কের মতো একটি খোলামেলা শহরে বসে তিনি এক প্রশ্নের জবাবে শুধু তাঁর মতামত দিয়েছেন আর তাতেই হইহই রইরই শুরু হয়ে গেলো গোটা বাংলাদেশী সমাজে, রাজনীতিতে তিনি অপাংতেয় হয়ে গেলেন, এবং আরো আশ্চর্যের ব্যাপার হলো তাঁকে ইসলামের শত্রু আখ্যা দিয়ে নারায়নগঞ্জের এক হেফাজতী নেতা তাঁর মাথার দামও ধার্য করে দিলেন। আওয়ামী লীগ, বিএনপি, হেফাজত, জামায়াত ইত্যাদি দলের নেতাকর্মীরা কে কতো বড়ো মুসলমান প্রমাণ করার জন্যে উঠে পড়ে লেগে গেলেন, একজনও প্রশ্ন করলেন না যে মানুষ কি তার মতামত দিতে পারবে না, বা মতামত প্রকাশ করাই কি অপরাধ! এমনকি বুদ্ধিজীবীদের কেউ বিবৃতি দিয়েও ব্যাপারটির নিন্দা জানালেন না। বরং সবাই উঠে পড়ে প্রমাণ করতে চাইলেন যে ধর্ম নিয়ে কোনো মন্তব্য করা যাবে না। প্রকারান্তরে তাই মনে হলো বাংলাদেশের রাষ্ট্র ধর্মই শুধু ইসলাম নয়, এ দেশ পরিচালনার মূল মন্ত্রও ইসলাম। ফলত, আজকের বাংলাদেশ যে একটি পুরোপুরি মধ্যযুগীয় ইসলামিক রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে তা অনেকটাই স্পষ্ট। অশিক্ষিত ও অর্ধ শিক্ষিত মোল্লাদের সাথে গলা মিলিয়ে সবাই বেঁচে থাকার পথ করে যাচ্ছে। অতএব প্রশ্ন জাগে যে গত ৪০ বছরের দেশ কি শুধু পিছনেই গেলো? ধর্মনিরপেক্ষতার মূল মন্ত্রে যুদ্ধ করে স্বাধীন করা সেই দেশকে মধ্যযুগে যারা নিয়ে গেলেন তারা কিন্তু আলখাল্লা পরা মোল্লা নন, তারা সবাই-ই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া নেতানেত্রী--যারা আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে নিজেদের মস্তক বন্ধক রাখলেন মোল্লাদের খুঁতিতে। ব্যাপরটি খুবই দুঃখজনক এই কারণে যে এই নেতানেত্রীরা অচিরেই মোল্লা ওমর কিম্বা বিন লাদেনদের মতো কারো হাতে দেশ তুলে দিতেও হয়তো এতোটুকু দ্বিধা করবেন না। কারণ যুক্তিতর্ক ও মানুষের স্বাধীন মতামত যখন আঘাতপ্রাপ্ত হয় তখন অবশিষ্ট থাকে শুধু অন্ধকার।

ইবোলা এখন নিউইয়র্কে


এনওয়াইনিউজ৫২: ক্রেগ স্পেনসার নামে এক চিকিৎসকের শরীরে ইবোলা ভাইরাস ধরা পড়েছে। তিনি এখন নিউইয়র্কের বেলভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন আছেন। নিউইয়র্কে স্পেনসারই ইবোলা আক্রান্ত প্রথম ব্যক্তি। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে চতুর্থ কোনো ব্যক্তির শরীরে ইবোলা ভাইরাস ধরা পড়ল। ডাক্তার উইদাউট বর্ডাস-এ কর্মরত ডা. স্পেনসার গিনি থেকে দেশে ফেরার সপ্তাহখানেক পর এই রোগে আক্রান্ত হন। নিউইয়র্ক কমিশনার (স্বাস্থ্য) মেরি বাসেট বলেছেন, স্পেনসারের শরীরে ইবোলা ধরা পড়ার পর আরও চারজনকে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে যারা স্পেনসারের সংস্পর্শে ছিলেন। স্পেনসার পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গিনি ত্যাগ করেন ১৪ অক্টোবর। ইউরোপ হয়ে তিনি নিয়ইয়র্কে ফেরেন ১৭ অক্টোবর। তিনি এই রোগে আক্রান্ত নিউইয়র্কের প্রথম ব্যক্তি। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে ইবোলায় আক্রান্ত প্রথম ব্যক্তিটি ছিলেন লাইবেরিয়ান। লাইবেরিয়া থেকে তিনি টেক্সাস রাজ্যের ডালাসে ভ্রমণে গেলে তার শরীরে ইবোলা ধরা পড়ে। থমাস এরিক ডানকান নামের ওই ব্যক্তি ৮ অক্টোবর মারা যান। যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ইবোলা আক্রান্তের সংখ্যা চার। ইতিমধ্যে সিটির ব্রংক্স এলাকা থেকে এক কিশোরকে ইবোলা আক্রান্ত কিনা সেই পরীক্ষার পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এয়ারপোর্ট, ও শহরের বিভিন্ন স্থানে সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে যাতে এই রোগটি মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়তে না পারে। নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের চারটি হাসপাতালকে ইবোলা চিকিৎসার জন্যে ভার দেয়া হয়েছে, বেলভিউ তাদের অন্যতম।

মার্কিন কবিতা সন্ধ্যায় কবি হাসানআল আব্দুল্লাহ


কবিতা পড়ছেন কবি হাসানআল আব্দুল্লাহ
ভূঁইয়া আহসান হাবীব: (নিউইয়র্ক) ম্যানহাটনের মার্কিন কাব্যপ্রেমিদের প্রাণকেন্দ্র গ্রীনিজ ভিলেজে এক কবিতা সন্ধ্যায় ফিচার পোয়েট হিসেবে কবিতা পড়েন ভিন্ন ধারার সনেট নির্মাতা, বাংলা সাহিত্যের নব্বই দশকের অন্যতম প্রধান কবি হাসানআল আব্দুল্লাহ। ১৯ অক্টোবর, রোববার, লোয়ার ম্যানহাটনের ‘লেফট ব্যাংক বুকস’ নামক ঐতিহ্যবাহি বইয়ের দোকানে আয়োজিত এ কবিতা সন্ধ্যায় কবি মাইকেল গ্রেভস-এর সঞ্চালনায় কবি ও প্রকাশক স্ট্যানলি এইচ বারকান ও সঞ্চালকের কবিতার পাশাপাশি পিন পতন নীরবতার মাঝে হাসানআল আব্দুল্লাহ’র কবিতা হয়ে ওঠে মুখর রাজনৈতিক ও মানবতার বিশুদ্ধ রূপ। তিনি যে ভাষা যে ভঙ্গি ও যে মানবিক মূল্যবোধকে তাঁর কবিতায় শিল্পীত ভাবে উপস্থাপন করেছেন তাকে এক কথায় অনন্য ও অসাধারণ না বলে উপায় নেই। তার কবিতায় দেশ, মানুষ, সমাজ, সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের এমন যুক্তিনিষ্ঠ উপস্থাপন তাঁর সময় কালে আর কেউ করে উঠতে পেরেছেন বলে জানা নেই। কবিতা লেখার পাশাপাশি হাসানআল আব্দুল্লাহ দ্বিভাষিক কবিতা পত্রিকা ‘শব্দগুচ্ছ’ দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে সম্পাদনা করে আসছেন, যা তাঁকে মার্কিন কবিদের মাঝে ব্যাপক পরিচিতি এনে দিয়েছে। তাঁর সাড়া জাগানো কাব্যগ্রন্থ ‘স্বতন্ত্র সনেট’ ও মহাকাব্য ‘নক্ষত্র ও মানুষের প্রচ্ছদ’ উত্তরাধুনিক কাব্য ধারায় অসামান্য দ্যোতনায় উদ্ভাসিত। কবিতা বোদ্ধারা এই কাব্যগ্রন্থ দুটির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। তাঁর কাব্য ভাষায় অভিনবত্ব এবং উপস্থাপনার কৌশল অত্যন্ত চমৎকার যা মার্কিন তথা বিশ্বের অন্যান্য ভাষার কবিতাদের নজর কেড়েছে। এ কবিতা সন্ধ্যায় উন্মুক্ত পর্বে অন্যান্যদের মধ্যে কবিতা পড়েন রবার্ট স্কোটো, ফ্লোরেন্স কিন্ডেল, ও পিটার ব্লাক্সেল প্রমুখ। গান গেয়ে শোনান সানি বারকান।


কথা ও ছবি


আমার আরো বল চাই!!--মেসি

আমাদের ক্রিকেট সেনারা!!






স্বতন্ত্র কাব্যচিন্তা















প্রকাশক: অনন্যা, ২য় সংস্করণ: ২০১৪

নিউজ৫২ একস্লিপ

রক্তে কেনা স্বাধীনতা







Watch more videos


পত্রিকা




কার্টুন









Important Links:
Newspapers: Ittefaq   Prothom-Alo   Jugantor   BhorerKagoj   Janakantha   AmarDesh   Inqilab   Naya Diganta   Shamokal  Jai Jai Din   Amader Shomoy   Dainik Amader Shomoy   Sangbad   Destiny   Manav Jamin   Shokaler Khobor   Ananda Bazar Daily Star   Independent   New Nation   Observer   New Age   Financial Express  
Magazines: Shaptahik Anyadin  Weekly Holiday  BiWeekly Anannya     Probash  Monthly Porshi
Online Journals: NYNews52   NYbangla   Bdnews24   Banglanews24   Banglamati   Sristi  Urhalpool
Radio Online: Voice of America  BBC Bangla Service  German Bangla Radio  Betar Bangla LA Radio Japan (Bengali)  Radio Metrowave Dhaka
Organizations: Bangla Academy   Mukto-Mona  
Poetry Mag: Poetry   Yale Review   Agni   Paris Review   Shabdaguchha
Personal Page: Taslima Nasrin   Hassanal Abdullah  

আরো খবর— 2 3 4 5 6 7 8
NYnews52.com, a e-paper in Bangla, published from Queens, New York